বারি বেবী কর্ণ-১ ভুট্টা উৎপাদন ও সংরগ্রহ


থাইল্যান্ডের ক্যাসেটসার্ট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জাতটি সংগ্রহ করে বাংলাদেশের আবহাওয়ায় চাষাবাদ উপযোগিতা যাচাই বাছাই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে উদ্ভাবিত বারি ‘বেবী কর্ণ-১’ জাতটি ২০১৩ সালে বাংলাদেশে চাষাবাদের জন্য অনুমোদিত হয়। রবি মৌসুমে পুরুষ ফুল বের হতে ৮৬ দিন এবং বোনা থেকে বেবী কর্ণ সংগ্রহ করা পর্যন্ত ৭২-৭৫ দিন সময় লাগে। গাছের গড় উচ্চতা ১৪২ সেমি। মোচার অগ্রভাগ সুচালো এবং মোচাতে সারির বিন্যাস সামঞ্জস্যপূর্ণ। প্রতিটি গাছে ২টি করে মোচা উৎপন্ন হয়। জাতটি টারসিকাম লিফ ব্লাইট (TLB) প্রতিরোধী। হেক্টরপ্রতি ১৫-২০ টন পশু খাদ্য পাওয়া যায়। রবি মৌসুমে গড় ফলন ১.২৭-১.৩০ টন/হেক্টার।

বারি

বেবী কর্ণ ভুট্টার উৎপাদন প্রযুক্তি

ভূমিকা: বেবী কর্ণ এক ধরনের ভুট্টা। ইহা অত্যন্ত কচি অবস্থায় সবজি, সুপ,সালাদ, নুডুলস এর সাথে অথবা কাঁচা অবস্থায় রান্না ছাড়াই খাওয়া যায়। ভুট্টার মোচা দানা হওয়ার পূর্বেই সবুজ খোসা অপসারণ করে ব্যবহার করতে হয়।

মাটি: উঁচু ও মাঝারী উঁচু ঊর্বর বেলে দোআঁশ মাটি অথবা পানি দাঁড়ায় না এমন এঁটেল মাটিতে বেবী কর্ণ চাষ করা যায়।

জমি তৈরি: মাটির ‘জো’ থাকা অবস্থায় জমির প্রকারভেদে প্রমে ৩-৪টি আড়াআড়ি চাষ ও মই দিয়ে মাটি ঝুরঝুরে করে নিতে হবে।

বপনের সময়: সারা বছর বেরী কর্ণ চাষ করা যায় (বৈশাখ, জ্যৈষ্ঠ, আষাঢ় ও শ্রাবণ মাস ছাড়া)।

বীজের হার: হেক্টরপ্রতি ২৫-৩০ কেজি।

বীজের বপন পদ্ধতি: সারি থেকে সারির দূরত্ব ৪০-৫০ সেমি, গাছ থেকে গাছের দূরত্ব ২০-২৫ সেমি।

সারের পরিমাণ:

বারি

সারের প্রয়োগ পদ্ধতি: জমি তৈরির শেষ পর্যায়ে ইউরিয়া ১/৩ অংশ ও অন্যান্য সারের সবটুকুই জমিতে ছিটিয়ে চাষ দিয়ে মাটির সাথ ভালোভাবে মিশিয়ে দিতে হবে। বাকি ইউরিয়া সমান ২ ভাগ করে চারা গজানার ১৫-২০ দিন এবং ৩৫-৪০ দিনের মাথায় উপরি প্রয়োগ করতে হবে। ঊর্বরতাভেদে সারের তারতম্য হতে পারে।

আগাছা দমন: গাছের বয়স এক মাস না হওয়া পর্যন্ত জমি অবশ্যই আগাছামুক্ত রাখতে হবে।

সেচ ও পানি নিষ্কাশন: রবি মৌসুমে সাধারণত ২ বার সেচের প্রয়োজন হয় এবং ইউরিয়া সার উপরি প্রয়োগের সময় দিলে ভালো হয়। খরিফ মৌসুমে খরা দেখা দিলে সেচ দিতে হবে। খরিফ মৌসুমে অতি বৃষ্টিতে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করতে হবে।

বেবী কর্ণের পুরুষ ফুল অপসারণ: পুরুষ ফুল কচি অবস্থায় ফুটে বের হওয়ার পূর্বেই টাসেল ধরে টান দিয়ে অপসারণ করতে হয়।

ফসল সংগ্রহ: নিচের দিকে মোচার মাথায় যখ সিল্কগুলো ২.৫-৩.০ সেমি লম্বা হয় তখন ধারালো চাকু বা কাচি দ্বারা মোচাটি গাছ থেকে কেটে নিতে হবে।

বারি

ফলন: হেক্টরপ্রতি ফলন ৪-৫ টন। গো-খাদ্য হিসেবে (গাছ) ২০-২৫ টন।

জীবন কাল: গ্রীষ্মকাল : ৫০-৬০ দিন, শীতকাল : ৭০-৮০ দিন।

সংরক্ষণ: বেবী কর্ণের মোচা গাছ থেকে সংগ্রহ করার পর উপরের আবরণসহ ২-৩ দিন সংরক্ষণ করা যায়। কিন্তু আবরণ অপসারণের পর পলিব্যাগে পুরে নিমড়বতাপে ফ্রিজে সংরক্ষণ করলে ১০-১৫ দিন সংরক্ষণ করা যায়। এছাড়া পানি, চিনি, লবণ ও ভিনেগারের দ্রবণে বায়ু রোধক পাত্রে (ক্যানে) বেবী কর্ণ সংরক্ষণ করা হলে মাসের পর মাস ব্যবহার করা যায়। প্রতি ক্যানে ১ কেজি বেবীকর্ণ থাকে। অভিজাত দোকানে একটি ক্যানের বর্তমান বাজার মূল্য ২০০-২২৫ টাকা।

শখের কৃষি- কৃষি প্রতিবেশি


সুত্রঃ কৃষি প্রযুক্তি হাতবই 
বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট

Tags:

We will be happy to hear your thoughts

Leave a Reply

শখের কৃষি
Logo
Reset Password
Shopping cart