বারি তৈকর-১

বারি তৈকর-১

বৈশিষ্ট্য : নিয়মিত ফলদানকারী উচ্চফলনশীল জাত। গাছ মাঝারী, মধ্যম ছড়ানো ও বেশ ঝোপালো। বছরে দু’বার ফল দেয়। ফল চ্যাপ্টা-গোলাকৃতির, আকারে বড় (৭০০-৭৫০ গ্রাম)। প্রতিটি ফলের দৈর্ঘ্য ১০.৩ সে.মি. এবং প্রস্থ ৯.২ সে.মি.। কচি ফলের রং সবুজ, পরিপক্ক বা পাকা ফলের রং হলুদ।
উপযোগী এলাকা  : বৃহত্তর সিলেট জেলার জন্য উপযোগী।
বপনের সময়  : মধ্য জ্যৈষ্ঠ থেকে মধ্য আশ্বিন (জুন-সেপ্টেম্বর) মাসে চারা রোপণ করতে হবে। তবে পানি সেচের সুব্যবস্থা থাকলে বছরের যে কোন সময় চারা রোপণ করা চলে।
মাড়াইয়ের সময়:  প্রথমবার ফুল আসে মধ্য শ্রাবণ থেকে মধ্য আশ্বিন (আগস্ট-সেপ্টেম্বর) মাসে এবং দ্বিতীয়বার ফুল আসে মধ্য মাঘ থেকে মধ্য ফান্ডুন (ফেব্রম্নয়ারি) মাসে। প্রথমবার ফল সংগ্রহের উপযোগী হয় মধ্য কার্তিক থেকে মধ্য পৌষ (নভেম্বর-ডিসেম্বর) মাসে এবং দ্বিতীয়বার ফল সংগ্রহের উপযোগ
ফলন: ৭০-৭৫ টন/হেক্টর। গাছপ্রতি ফলের সংখ্যা ৩০০-৩৫০টি।

 রোগবালাই ও দমন ব্যবস্থা

 রোগবালাই: খুবছোট চারা গাছে ড্যাম্পিং অফ রোগ দেখা দিতে পারে।
 দমন ব্যবস্থা: চারা উৎপাদনের মাটি শোধন করে শোধনের পর বীজ রোপণ করতে হবে। ট্রাইকো কম্পোস্ট মিশিয়ে মাটি জীবানুমুক্ত করা যায়। চারাগাছে রোগ দেখা দিলে প্রতি লিটার পানিতে ২ গ্রামহারে সিকিউরমিশিয়ে ৭-৮ দিন পর পর ৩-৪ বার স্প্রে করতে হবে।

 পোকামাকড় ও দমন ব্যবস্থা

 পোকামাকড়: তৈকর ফলে তেমন কোন মারাত্বক পোকামাকড়ের উপদ্রব দেখা যায় না।
 দমন ব্যবস্থা: 

 সার ব্যবস্থাপনা

সারের নাম গাছের বয়স(বছর)
১-২ ৩-৪ ৫-১০ ১০-১৫ ১৫এর অধিক
গোবর (কেজি) ৫-১০ ১০-১৫ ২০-২৫ ২৫-৩০ ৩০-৪০
ইউরিয়া (গ্রাম) ২০০-৩০০ ৩০০-৪৫০ ৪৫০-৬০০ ৬০০-৭৫০ ১০০০
টিএসপি (গ্রাম) ২০০-৩০০ ৩০০-৪৫০ ৪৫০-৬০০ ৬০০-৭৫০ ১০০০
এমওপি(গ্রাম) ২০০-৩০০ ৩০০-৪৫০ ৪৫০-৬০০ ৬০০-৭৫০ ১০০০

প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞের সাথে কথা বলুন।

We will be happy to hear your thoughts

Leave a Reply

Logo
Reset Password
Compare items
  • Total (0)
Compare
0