Editor choice

কোকো পিট। কোকো পিট ব্যবহারের নিয়মাবলী ও কোথায় পাবেন

2

কোকো পিট

225.00
Offer shokherkrishi.com
Last update was on: December 9, 2019 5:24 am

COCO Industry price 01720503616

230.00
Offer facebook.com
Last update was on: December 9, 2019 5:24 am

কোকো পিট

250.00
Offer facebook.com
Last update was on: December 9, 2019 5:24 am

পৃথিবীর উন্নত দেশ গুলোতে বাড়ির ছাদে বা বারান্দায় বাগান করার জন্য অনেকেই মিডিয়াম বা মাটির বিকল্প হিসাবে কোকো পিট ব্যবহার করে থাকেন। ছাদ বাগান কিংবা বাণিজ্যিক চাষের জন্য কোকো পিট মাটির উন্নত বিকল্প। শুকনো নারেকেলের আঁশ বা কয়ার এর গুঁড়া হলো কোকো পিটের মূল উপাদান। এই উপাদানগুলকে হাইড্রোলিক মেশিনে চাপ প্রয়োগের মাধ্যমে বিভিন্ন সাইজ ও ওজনের ব্লক/পিট আকারে তৈরি করা হয়।

কোকো পিট

কোকো পিট

কোকো পিটের সুবিধা সমুহঃ
// কোকো পিটে আছে পানি ধরে রাখার অসাধারন ক্ষমতা। গাছের জন্য যতটুকু পানি দরকার ঠিক ততটুকু পানি এই কোকো পিট ধারন করে রাখে ফলে গাছের শিকড় বা মুলে পঁচন ধরে না।
// কোকো পিট দিয়ে গাছ লাগালে ক্ষতিকারক পোকা মাকড় আসে না।
// কোকো পিটে দ্রুত পানি ও বাতাস চলাচল করতে পারে ফলে গাছের শিকড় দ্রুত বাড়ে। গাছের শিকড় বাড়ার কারনে গাছও দ্রুত বাড়ে এবং সাস্থ্যবান হয়।
// কোকো পিটে দ্রুত পানি ও বাতাস আসা যাওয়ার কারনে ক্ষতিকারক ছত্রাক ও ব্যাকটেরিয়া আক্রমণ করতে পারে না।
// কোকো পিটে রাসায়নিক সার মিশানো ছাড়াও চাষ করা যায়। শুধু মাত্র ভার্মি কম্পোষ্ট অথবা জৈব সার মিশিয়ে চাষ করা যায় ফলে রাসায়নিক মুক্ত সবজি, ফল, ফুল, অর্কিড ও অন্যান্য গাছ উৎপাদন করতে পারবেন।
// কোকো পিট মাটির তুলনায় পরিষ্কার ও পরিছন্ন ফলে যেখানে গাছ রাখবেন সেই যায়গা গুলো যেমন আপনার ঘর, বারান্দা ও ছাদ নোংরা হবে না সর্বসময় পরিষ্কার ও পরিছন্ন থাকবে।
// কোকো পিটে বেড়ে উঠা গাছের ফল ও ফুল বড় ও পুষ্টিবান হয় এবং যার কারনে হাইড্রপোনিক্স বাগান মালিকেরা মাটি ব্যাবহার না করে কোকো পিট ব্যাবহার করে থাকেন।
// কোকো পিট ১০০% জৈব উপাদান।
// কোকো পিটে প্রাকৃতিকভাবে অপকারী ব্যাকটেরিয়া এবং ফাঙ্গাস প্রতিরোধী উপাদান বিদ্যমান থাকে।
// কোকো পিটে প্রাকৃতিক মিনারেল থাকে যা উদ্ভিদের খাদ্য তৈরি এবং উপকারী অণুজীব সক্রিয় করার জন্য বিশেষ ভূমিকা রাখে।
// কোকো পিট ph মান সঠিক পরিমানে ধরে রাখে।
// কোক পিটে পানি নিষ্কাশন খুব সহজেই হয়।
// কোকো পিটে গাছের মৃত্যুহার খুব কম।
// বীজতলা ও বীজ জার্মিনেশন এর এক অসাধারন মাধ্যম এই কোকো পিট।
// হাইড্রপোনিক্স চাষাবাদ এর জন্য অন্যতম মাধ্যম।
// কোকো পিট মাটির তুলনায় ওজনে অনেক গুন হালকা তাই গাছের টব বা পাত্র সহজে বহন করা যায়। আর ছাদের উপর অতিরিক্ত চাপও পড়েনা।

কোকো পিট ব্লক সাইজ:

২-৩ কেজি পর্যন্তঃ ১৭৫ টাকা
৩-৪ কেজি পর্যন্তঃ ২২৫টাকা
৪-৫ কেজি পর্যন্তঃ ২৭৫ টাকা

দ্রস্টব্যঃ কোকো পিটের ওজন নির্দিস্ট ভাবে বলা যায় না, একেকটা কোকো পিটের ওজন একেক রকমের হয়ে থাকে। ৪-৫ কেজি কোকো পিট অর্ডার দিলে আপনার কাছে যে কোকো পিট যাবে সেটার ওজন হবে ৪-৫ কেজির ভেতর অর্থাৎ ৪ কেজির উপরে এবং ৫ কেজির নিচে।

সারা দেশে ডেলিভারি চার্জঃ ১০০ টাকা (একের বেশি নিলে ওজনের জন্য ডেলিভারি চার্জ বাড়বে)

পেমেন্টঃ ক্যাশ অন ডেলিভারি, বিকাশ*

* বিকাশের ক্ষেত্রে অগ্রিম পেমেন্ট দিতে হবে।

অর্ডারের জন্য আমাদের সাইট ভিজিট করুন, মেসেজ দিন অথবা যোগাযোগ করুন 01511 00 33 77 (সকাল ১০ টা – সন্ধ্যা ৭ টা)

Check this product on our website:
http://www.garden.com.bd/…/108-134-cocopeat-3-5-kg-block.ht…

কোকো পিট ব্যবহারের নিয়মাবলীঃ

প্রতি কেজি কোকো পিটের সাথে ৫ লিটার পানি মেশাবেন। পানি অল্প অল্প করে কিছুক্ষণ পর পর কোকো পিটের উপর ঢালতে থাকবেন। দেখবেন কোকো পিট দ্রুত ফুলতে থাকবে। ফোলা অংশটুকু হাত দিয়ে ঝুর ঝুরা করে নিন। হাত দিয়ে ছাড়ানোর পরও যদি ভিতরে কিছু অংশ শক্ত ও শুকনো থেকে যায় তাহলে ঐ অংশ টুকুর উপর আরো পানি ঢালুন। খেয়াল রাখবেন পানি যাতে বেশি হয়ে থ্যাক থ্যাকে না হয়ে যায় আর যদি হয়েও যায় তাহলে নেট জাতীয় কাপড়ে রেখে ঝুলিয়ে অতিরিক্ত পানি ঝরিয়ে নিন। সম্পুর্ন ঝুর ঝুরে হয়ে যাওয়ার পর আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যাবহার করুন।

// টবে বা বেডে কোকো পিট দিয়ে গাছ লাগানোর নিয়মঃ-
প্রথমে একটি গামলা/ প্লাস্টিক বল এর মধ্যে ঝুর ঝুরা হয়ে যাওয়া ভেজা কোকো পিট নিন। এর সাথে কোকো পিটের ৫০% ভালো মানের ভার্মি কম্পোস্ট সার ভালো করে মিশিয়ে নিন। চাইলে মাটি মিশিয়ে দিতে পারেন। মেশানো হয়ে গেলে মিশ্রণটি দিয়ে আপনার পছন্দের টব অথবা বেড তৈরি করে গাছ বা গাছের চারা রোপন করে দিন। নিয়মিত পরিমান মত পানি দিবেন।

// বড় ড্রামে কোকো পিট দিয়ে গাছ লাগানোর নিয়মঃ-
প্রথমে একটি গামলা/ প্লাস্টিক বল এর মধ্যে ঝুর ঝুরা হয়ে যাওয়া ভেজা কোকো পিট ৫০%+ ভালো মানের ভার্মি কম্পোষ্ট সার ৩০% + ২০% ভালো মানের মাটি নিন এবার ৩ টি উপাদান ভাল করে করে মিশিয়ে নিন। মেশানো হয়ে গেলে মিশ্রণটি দিয়ে আপনার পছন্দের ড্রামে গাছ বা গাছের চারা রোপন করে দিন। নিয়মিত পানি দিবেন। কোকো পিট দিয়ে ড্রামে গাছ লাগাতে হলে অবশ্যই গাছের মধ্যে শক্ত সাপোর্ট দিতে হবে যাতে ঝড়ো বাতাসে হেলে না যায়।

// বীজ থেকে চারা তৈরীর জন্য কোকো পিট ব্যাবহার এর নিয়মঃ-
বীজ থেকে চারা তৈরীর জন্য ঝুর ঝুরে হয়ে যাওয়া কোকো ডাস্ট গুলোকে চাল ধোয়ার মত ২-৩ বার ভাল করে ধুয়ে নিতে হবে। ধোয়া শেষ হয়ে গেলে ধান শুকানোর মত কর করা রোদে শুকিয়ে নিতে হবে। সম্পুর্নভাবে শুকিয়ে যাওয়া কোকো ডাস্ট গুলো দিয়ে বীজের ট্রে অথবা কালো রং এর প্লাস্টিকের ১২০-১৫০ মিঃলিঃ কাপ / গ্লাস ভরাট করুন। বীজের ট্রে অথবা প্লাস্টিকের কাপ / গ্লাস কোকো ডাস্ট দিয়ে ভরাট করে নেওয়ার পর এগুলোর উপর ঝর্নার মত পানি ছিটিয়ে ভিজিয়ে নিন এরপর এক এক করে বীজ গুলে বুনে দিন। খেয়াল রাখবেন কোকো পিটের বীজতলায় অতিরিক্ত পানি থাকলে বীজ পঁচে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। বীজ বোনার আগে জেনে নিন আপনি যে বীজ বুনবেন সেগুলো আগে থেকে পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে কি না? বীজ বোনা শেষ হেয় গেলে বীজের ট্রে অথবা প্লাস্টিকের গ্লাস গুলো ঘোলাটে বা কালো পলিথিন দিয়ে ঢেকে রাখুন যাতে বাতাস স্বাভাবিক ভাবে আসা যাওয়া করতে পারে এবং রোদ সরাসরি না পড়ে। বীজ গজানোর পর উপযুক্ত সময়ে টব / ড্রাম / বেড এ চারা রোপন করে দিন।

কোকো পিটে রাসায়নিক সার ব্যাবহার করেও চাষ করা যায়। মাটিতে যে পরিমান রাসায়নিক সার ব্যাবহার করে চাষ করা হয় ঠিক সেই পরিমান সার কোকো পিটে ব্যাবহার করে চাষ করতে পারবেন

We will be happy to hear your thoughts

      Leave a Reply

      Logo
      Reset Password
      Compare items
      • Total (0)
      Compare
      0