কৃষিতে ই-কমার্স, অনলাইন কৃষি দোকান বা অনলাইন কৃষি ব্যবসা করতে কি কি লাগে?

কৃষিতে ই-কমার্স হল আপনি ঘরে বসে অনলাইন দোকানে আপনার পণ্য সাজিয়ে রাখবেন, ক্রেতা আসবে দেখবে জানবে, কেনার জন্য অর্ডার দিবে, আপনি অর্ডার নিশ্চিত করে পণ্য ডেলিভারি দিয়ে টাকা বুঝে নিবেন। আধুনিক যুগে নিজের গণ্ডি পেরিয়ে সারা দেশের বা বিশ্বের সাথে ব্যবসা করার অন্যতম উপায়। কি লাগে এই ব্যবসা শুরু করতে? ইন্টারনেট বা গুগলে খুজলে সবকিছুই জানতে পারবেন তারপরও আমার ধারনা থেকে কিছু তথ্য শেয়ার করলাম।

কৃষিতে ই-কমার্স

কৃষিতে ই-কমার্স

১। কৃষি সেবা বা পণ্য

সেবা বা পণ্য ছাড়া ব্যবসা করবেন কি নিয়ে? নিজের পণ্য না থাকলে ব্যবসা নাই এ কথাটা ই-কমার্স জগতে একেবারে সত্য না। নিজের পণ্য থাকলে খুব ভাল। না থাকলেও ভাল। অন্যের পণ্য অনলাইনে বিক্রি করতে পারেন সহজেই।

২। একটি কম্পিউটার বা ভাল এনড্রয়েড ফোন এবং ইন্টারনেটঃ

নিজের হলেই ভাল হয়।

৩। একটি ইমেইল

যেকেউ ফ্রি করে দিতে পারবেন।

৪। একটি ফেসবুক পেজ

এটও যেকেউ করে দিতে পারবেন তবে ফেসবুক শপ থেকে ই-কমার্স সাইটে চেক-আউট সেটাপ করা একটু টেকনিক্যাল ব্যপার, তবে  প্রথমে একবার সেট করলে আর করা লাগবে না। এর উপর ছোট একটা ভিডিও লিংক দিব।

৫। ই-কমার্স সম্পর্কে প্রাথমিক ধারনা

একদম ফ্রি, জানার ইচ্ছা থাকলেই হল। ই-কমার্স এর উন্নতি ইংরেজদের হাতে হওয়ায় এর বেশিরভাগ ভাষা ইংরেজি এবং কিছুটা টেকনিক্যাল। যেমনঃ Wishlist, Cart, Shipping, Coupon, SEO, Social Profiles, Review, Product Category, Product Enquiry ইত্যাদি। এর কিছু প্রাথমিক ধারনা নিয়ে আমি একটি লেখা দিব। এখানে পাবেন।

৬। একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট বা মার্কেটপ্লেস বা অনলাইন বড়বাজারে একটি দোকান নেয়া

টাকা খরচ করে নিজেরই একটি ই-কমার্স করে নেয়া যায়। তবে এটা অনেকটা নিজের বাড়িতে দোকান দেয়ার মত। আপনি আপনার সাইটে পণ্য নিয়ে বসে থাকবে আর তেমন কেউ তা জানবেও না আর আপনার দোকানে আসবেও না। তবে যদি আগে থেকে আপনার বড় ধরনের সুনাম থাকে তবে সেটাই ভাল হয়। নতুনদের জন্য যদি এই দোকান অনলাইন মার্কেটপ্লেস বা  বড়বাজারে হয় যেখানে সবসময় ক্রেতা থাকে তবে আপনার দোকানেও ক্রেতা আসবে । ক্রেতা আসলে বিক্রিও হবে এমনিতেই। অন্যদের জন্য ফ্রি সুযোগ না থাকলেও কৃষি ব্যবসায়ীদের জন্য ফ্রি সুযোগ নিয়ে এসেছে শখের কৃষি সাইট shokherkrishi.com

৭।কৃষি পণ্য ডেলিভারির জন্য কুরিয়ার সার্ভিস

অনলাইনে ব্যবসার বড় একটা বাধা ছিল এই পণ্য ডেলিভারি, তবে এখন তা আনেকটাই কমে গেছে। বড় শহরগুলাতে নেই বললেই চলে। একটু খোজ খবর নিলেই পেয়ে যাবেন এর সমাধান। ই-কমার্স জগতে এই পণ্য ডেলিভারির খরচ ক্রেতাই দিয়ে থাকে তাই এটা নিয়ে খুব বেশি চিন্তা করবেন না। খুব তাড়াতাড়ি এইসব সেবাদাতাদের সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে আরো একটা পোস্ট লিখব।

৮। অনলাইন পেমেন্ট

সব কিছুর শেষ কথা টাকা কিভাবে বুঝে পাব। এখন টাকা পাঠানোর হাজারো উপায় আছে। বিকাশ, রকেটত এখন পকেটে পকেটে। তবে অনলাইন পেমেন্ট আরো সুবিধার। ই-কমার্স শুরু করলে আরো আনেক কিছু এমনিতেই জানতে পারবেন।

৯। প্রচারেই প্রসার

এখন চলছে প্রচারেই প্রসারের যুগ। আপনার পণ্য যত বেশি প্রচার পাবে ব্যবসা তত বেশি আগাবে। অনলাইন ব্যবসায় অনলাইন প্রচারই বেশি ভাল হয়। অনলাইন প্রচারের হাজার হাজার উপায় আছে। ফ্রি আছে আবার টাকা খরচ করেও করা যায়। যেমন ফেসবুক বুস্ট এ ২০০ টাকার বিজ্ঞাপনে প্রায় ১০,০০০ লোকের কাছে প্রচার করার উপায় আছে। তবে এর জন্য কিছু দক্ষতার দরকার আছে। এ বিষয়ে আমি আলাদাভাবে লিখব।

১০ নম্বর আর লিখলাম না। কারন জানার কোন শেষ নেই। আপনার ইচ্ছা থাকলে এ যুগে জানায় কোন বাধা নেই। আমি আপনাদের সাথেই আছি।  কৃষিতে ই-কমার্স নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। যেকোন দরকারে যোগাযোগ করতে পারেন। প্রতিটা বিষয়ে আনেক জানার আছে। নিজের কোন মতামত থাকলে #কৃষিতে_ইকমার্স হ্যাস ট্যাগ দিয়ে লিখুন। কৃষিতে ই-কমার্স এ নিজের ক্যরিয়ার গড়তে আমাদের সাথেই থাকুন। কৃষিতে  ই-কমার্স

#কৃষিতে_ইকমার্স

1 Comment

Leave a Reply

Logo
Reset Password
Compare items
  • Total (0)
Compare
0